admin
ডিসেম্বর ৫, ২০২০
  • No Comments

    আলীকদমে লায়ন্স ক্লাব অব চট্টগ্রামের উদ্যাগে শীতবস্ত্রসহ বিভিন্ন উপহার সামগ্রী বিতরন

    মোঃ আলমগীর, বিশেষ প্রতিনিধি।।
    আলীকদম রেপাড়াপাড়া দারুল উলম এতিমখানার ছাত্র ও শীবাতলীপাড়ায় ১২ শ্ পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্রসহ অন্যান্য উপহার সামগ্রী বিতরণ করেছেন লায়ন্স ক্লাব অব চট্টগ্রাম। শুক্রুবার বেলা ১১ টায় লায়ন্স ক্লাব অব চট্টগ্রাম এর ব্যবস্থাপনায়, পাবলিক ডোনার আলীকদম শীবাতলী এর তত্ববধানে, পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ ও সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন লামা শাখার সহযোগিতায় ১২শ পরিবারে মাঝে শীতবস্ত্র ও অন্যান্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
    .
    এসময় লায়ন্স ক্লাব অব চট্টগ্রামের ২য় ভাইস জেলা গভর্নর শেখ সামচুদ্দিন আহ: ছিদ্দিকী ৩১৫ বি-৪, পাবলিক ডোনার এর প্রতিষ্ঠাতা জাতীয় শুটার আতিকুর রহমান, লায়ন ইঞ্জিনিয়ার মুজিবুর রহমান আরসি-১, জোন চেয়ার পার্সন লায়ন মো: আবদুল মান্নান, জোন চেয়ার পার্সন হোছাইন মো: রানা, বিশিষ্ট ডোনার সদস্য সাইফুদ্দিন জালালী, ডোনার সদস্য পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ লামা শাখার সাধারাণ সম্পাদক মো. কামরুজ্জামান নাগরিক পরিষদ বান্দরবান জেলা সহসভাপতি এমরুহুল আমিন, স্থানীয় উদ্যাক্তা খলিলুর রহমান, মাসিনু মার্মাসহ অন্যান্য লায়ন্স কর্মকর্তা বৃন্দ, স্থানীয় সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো: দেলোয়ার হোছাইন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
    .
    বিতরণ অনুষ্ঠানে এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে, ডোনার সদস্য পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ লামা এর সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান লায়ন্স ক্লাব অব চট্টগ্রামের সকল লায়ন, ডোনার প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্ট সবাইর প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। লায়ন্স এর সেকেন্ড গভর্নর শেখ সামচুদ্দিন আহ: ছিদ্দিকী সমগ্র ব্যাবস্থাপনায় মুগ্ধ হয়ে, তাদের এই মহতি প্রয়াস অব্যাহত রেখে প্রান্তিক জনগোষ্ঠির পাশে থাকবেন বলে বক্তব্যের মাধ্যমে আশ্বাস দেন।
    .
    বিতরণকৃত উপহার সামগ্রীর মধ্যে ছিলো, পাঁচ শ্ কম্বল, তিন শ্ সোয়েটার, মহিলাদের তিন শ্ গরম পোষাক, থ্রীপিচ, ১০টি সেলাই মেশিন, ২ শ্ বৈদ্যুতিক এনার্জি বাল্প, ছাত্রদের মাঝে ৫ শ্ খাতা-কলম, বিশ প্যাকেট মাস্ক। এছাড়া রেপাড়পাড়া দারুল উলম মাদরাসা ও এতিমখানার আবাসিক ছাত্রদের জন্য চাউল, ভোজ্য তেল, লবন, পেঁয়াজ, আলু ইত্যাদি উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়।
    .
    প্রসঙ্গত: এর আগেও লায়ন্স ক্লাব অব চট্টগ্রাম এই এলকায় প্রায় ১ হাজার দরিদ্র মানুষকে বিনা মূল্যে চক্ষু চিকিৎসা সেবা দেয়। এর মধ্যে ৩০ জনের চক্ষু অপারেশন-ল্যান্স স্থাপন করে দেয়। কোভিট-১৯ পরিস্থিত অনুকুল হলে আরো ৭০ জনের অপারেশন হবে বলে লায়ন্স কর্তৃপক্ষ জানান।