admin
সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০
  • No Comments

    চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলায় অতিরিক্ত মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রির অভিযোগ।

     
    মোঃ নেয়ামত উল্লাহ রিয়াদ, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
    সন্দ্বীপে অতিরিক্ত মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি করছে পাইকারী ও খুচরা ব্যবসায়ীরা।
    ভারত পেঁয়াজ বন্ধ করার ঘোষণা আসার পর থেকেই দেশব্যপী কিছু অসাধু ব্যবসায়ী পেঁয়াজ মৌজুদ করে দাম বাড়ানো চেষ্টা করছে।
    এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন কঠোর প্রদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি।
    চট্টগ্রামের সন্দ্বীপের বিভিন্ন পাইকারী ও খুচরা দোকান সরজমিনে ঘুরে দেখা যায় ৮০থেকে ১০০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ। দোকানের নাম,গুলো নিম্নে দেওয়া হলো সন্দ্বীপের তালতলি বাজার এর বড় পাইকারী ব্যবসায়ী শামসুল আলম এন্ড সন্স,এর বিরুদ্ধে অতিরিক্ত মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। কমপ্লেক্সে, নার্গিস ষ্টোর প্রকাশ মোশারফ সওদাগরের দোকান, দিদার ষ্টোর প্রকাশ দিদার সওদাগরের দোকান, মদিনা ষ্টোর, সেনেট হাটের পশ্চিম মাথায় রাসেল ব্রাদাস, তৈয়ব সওদাগরের দোকান সহ আরো অনেক পাইকারী দোকানীর বিরুদ্ধে বেশি মূল্য পেঁয়াজ বিক্রির অভিযোগ উঠেছে।
    পরিচয় গোপন রেখে একজন ভুক্তভোগী অভিযোগ করেন গতকাল বাসার বাজার জন্য বাজার করতে
    তালতলির শামসুল আলম এন্ড সেন্স যাই টুকিটাকি বাজার এর সাথে ২ কেজি পেঁয়াজ ও কিনি কিন্তু পেঁয়াজ কেজি প্রতি ৮০ টাকা করে কিনতে হয়েছে আমাকে। সন্দ্বীপে এমন অসংখ্য দোকানীর বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে।
    এ ব্যাপারে সন্দ্বীপের প্রশাসকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন ভুক্তভোগীরা।
    এদিকে চট্টগ্রামে সবছেয়ে বড় পাইকারী বাজার খাতুনগঞ্জ, চাকতাই, পাহাড়তলীতে গতকাল রাত থেকে পেঁয়াজ মৌজুদ করে রেখেছেন বড় পাইকারী ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট। বেশি দাম পাওয়ার আশায় তারা খুচরা দোকানীর কাছে বিক্রি করছে না এতে চট্টগ্রাম সহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় কৃত্রিম পেয়াজ সংকটে পড়ার আশংকা রয়েছে বলে মনে করছে ।
    সচেতন নাগরিক মহল,, তাদের দাবী দ্রুত বাজার মনিটরিং করে অসাধু মুনাফা লোভী ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করা হয়।
    তা নাহলে গত বছরের মত পরিস্থিতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে মনে করছে সচেতন নাগরিক মহল।