1. dainikpollysangbad@gmail.com : admin :
  2. muttasim7@gmail.com : মোঃ মুত্তাছিম বিল্লাহ : মোঃ মুত্তাছিম বিল্লাহ
নাজমুল হত্যা মামলার বাদী ও স্বাক্ষীদেরকে হুমকীর অভিযোগ - সন্ধান বার্তা
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:০১ অপরাহ্ন

নাজমুল হত্যা মামলার বাদী ও স্বাক্ষীদেরকে হুমকীর অভিযোগ

মধুপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন, ২০২২

টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার পার্শবর্তী ঘাটাইলের বগা ডেংরাচালা এলাকায় প্রায় এগার মাস আগে প্রতিপক্ষের হামলায় একই এলাকার আঃ বাছেদের ছেলে নাজমুল হোসেন(১৯) নিহত হলে এ ঘটনায় নিহতের চাচা শাহজাহান আলী বাদী হয়ে ঘাটাইল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

ঘটনার সহিত জড়িতদের আসামী করে টাঙ্গাইল আদালতে তাদের বিরুদ্ধে চার্জশীট প্রেরন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। বর্তমানে আসামী পক্ষের লোকজন ও জামীনে আসা মামলার ১০ নং আসামী আয়নাল তার লোকজন নিয়ে বাদীকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য নানা প্রকার হুমকী দিচ্ছে বলে জানান মামলার বাদী ও স্বাক্ষীগন।

এলাকার লোকজন ও স্বাক্ষীগন জানান তাদেরকে মামলার ব্যাপারে স্বাক্ষী না দেওয়ার জন্য বিভিন্ন রমক হুমকী দিচ্ছে। হুমকীর কারনে তারা আতংকের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন বলেও জানান। মামলার বাদী ও স্বাক্ষীগন মামলার আসামীদেকে দ্রুত গ্রেফতার করে তাদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবী করেন।

উল্লেখ্য টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার পার্শবর্তী ঘাটাইলের বগা ডেংরাচালা এলাকায় প্রতিপক্ষের হামলায় পিতা সহ দুই ছেলে আহত হওয়ার ঘটনায় ২ দিন মৃত্যুর সাথে পান্জা লড়ে অবশেষে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্হায় সন্ধায় মারা যায় নাজমুল হোসেন(১৯)।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে আব্দুল বাছেদ এর ছেলে নাজমুল ইসলাম ও সোহেলের সহিত একই এলাকার আব্দুল বেলালের ছেলে হৃদয়, মমিন ও মালেকের ছেলে জুয়েল এবং সোহেল এর সহিত ১৫ আগষ্ট খেলার মাঠে কথা কাটি হয় এবং হাতা হাতি হয়। এর জের ধরে একই গ্রামের মৃত আঃ মজিদের ছেলে বিবাদী বেলাল (৪৫)তার ছেলে হৃদয় হোসেন (২০) মমিন,হোসেন (২২) মৃত আহাম্মদ আলীর ছেলে মালেক (৫৫)এবং তার ছেলে জুয়েল(২৩) সোহেল (২৮) সমসের আলীর ছেলে শহিদুল(৩২) আঃ মজিদের ছেলে ময়েজ উদ্দিন(৩০) বোরহান উদ্দিনের ছেলে শাহজালাল(২৬) হাসেম আলীর ছেলে আয়নাল সহ আরও ৩/৪ জন মিলে ১৭ আগষ্ট সন্ধায় আব্দুল বাছেদ ও তার দুই ছেলে সোহেল ও নাজমুলকে ওই এলাকার সামছুল হকের বাড়ীর সামনে রাস্তায় আটকিয়ে এলোপাথারী ভাবে লাঠি দ্বারা মারপিট করে এতে তারা তিনজনই গুরুতর আহত হয়।

আহতদেরকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে ঘাটাইল হাসপাতালে পাঠায়। আহতদের মধ্যে সোহেল ও নাজমুলের অবস্থা আশংকাজনক হলে কর্তব্যরত চিকৎসক তাদেরকে উন্নত চিকৎসার জন্য টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। কর্তব্যরত ডাক্তার নাজমুলের অবস্থা  আশংকা জনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা ম্যাডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

ঢাকা ম্যাডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্হায় বৃহস্পতিবার (১৯ আগষ্ট) নাজমুল হোসেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়। শুক্রবার (২০ আগষ্ট) বিকেল ৫টার দিকে তার লাশ বাড়ীতে আনা হলে আত্বীয় স্বজনদের আহাজারীতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। পরে রাতে পারিবারিক কবরস্হানে তার লাশ দাফন করা হয়।

এ ঘটনায় ঘাটাইল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। লাশ দাফনের সময় ঘাটাইল থানা পুলিশ কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন বলে জানায় নিহত নাজমুলের পরিবারের লোকজন ও এলাকাবাসী।

আরও সংবাদ
সর্বস্বত্ব: @ সন্ধান বার্তা
Developer By Moshiur Rahman Maruf